September 26, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

হালদারপাড়ায় খুনের ঘাতক সজিব কারাগারে

মোবাইল ফোন বিক্রির ২০০ টাকার বিরোধের জেরে শহরতলীর হালদারপাড়ায় ছুরিকাঘাতে খুন হন রাজু দাস। এ ঘটনার সাথে জড়িত সজিব নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার তাকে মামলায় হত্যায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ তথ্যটি নিশ্চিত করেন জালালাবাদ থানার ওসি মো. নাজমুল হুদা খান।

গ্রেফতারকৃত সজিব (২২) সুনামগঞ্জ জেলার শাল্লা থানার আনন্দপুর গ্রামের গোপি রায়ের ছেলে। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে দক্ষিণ সুরমার মোমিনখোলা এলাকা থেকে জালালাবাদ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মোবাইল ক্রয়-বিক্রয়ের পাওনা ২০০ টাকা নিয়ে জালালাবাদ থানাধীন দুসকী এলাকার গোপী রায়ের ছেলে সজিবের সাথে ঘটনার ২ ঘন্টা আগে নিহত রাজু দাসের ঝগড়া হয়। এ ঝগড়াকে কেন্দ্র করে সজিবসহ অজ্ঞাত ২/৩ জন মিলে রাজু দাসকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হালদারপাড়াস্থ মজুমদার পল্লীর ভিতর বিষ্ণু ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের সামনে ধারালো ছুরি দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করলে সে গুরুতর আহত হয়। এ সময় রাজুর চিৎকারে আশপাশের বাসিন্দারা এসে তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত রাজু নবীগঞ্জ উপজেলার সাওকা গ্রামের দুলাল দাসের ছেলে।