October 23, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

ফটো সাংবাদিক হুমায়ূন কবীর লিটনের পিতার ইন্তেকাল॥ দাফন সম্পন্ন

দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি ও দৈনিক জালালাবাদের আলোকচিত্রী হুমায়ূন কবীর লিটনের পিতা, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর (অব:) সার্জেন্ট এবং সাউথ সুরমা প্রি-ক্যাডেট একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা, সিলেট নগরীর দক্ষিণ সুরমার বারখলা নিবাসী এম.এ মোছাব্বির গত ৩০ জুন মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় সিলেট সেনানিবাসস্থ সিএমএইচ হাসপাতালের আইসিইউ-তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নাইলাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি স্ত্রী, ৪ পুত্র, ১ কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মরহুমের নামাজে জানাযা ১ জুলাই বুধবার বাদ আছর সিলেট সিটি করপোরেশনের ২৫নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ সুরমার কায়েস্তরাইল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযার নামাজে ইমামতি করেন কায়েস্তরাইল জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মাহবুবুর রহমান নইমী। জানাজা শেষে বারখলাস্থ পারিবারিক গোরস্তানে মরহুমের লাশ দাফন করা হয়।

মরহুমের নামাজে জানাযায় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, আইনজীবী, জনপ্রতিনিধি, সমাজসেবী, যুব সমাজের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।

হুমায়ুন কবির লিটন জানান, তার পিতা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২১ জুন থেকে সিলেট সেনানিবাসস্থ সিএমএইচ হাসপাতালের আইসিইউ-তে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ায় মরহুম এম.এ মোছাব্বির এর গোসল ও দাফন কাজের দায়িত্ব পালন করেন কায়েস্থরাইল সমাজ কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ। বিজ্ঞপ্তি