September 26, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

ইতালিতে শ্রমিক ঠকানোর অভিযোগে দুই বাংলাদেশীসহ সাত খামারমালিক আটক

ইতালিতে প্রবাসী বাংলাদেশী শ্রমিকদের ঠকানোর অভিযোগে সাতজন খামার মালিককে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। আটককৃতদের মধ্যে দুইজন বাংলাদেশী ও বাকি পাঁচজন ইতালিয়ান নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির প্রশাসন। দেশটির দক্ষিণাঞ্চল কালাব্রিয়া বিভাগের কোসেন্সা অঞ্চলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, এক বাংলাদেশী শ্রমিকের দেয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের উপপ্রধান জুসেপ্পে জানফিন্নি কোসেন্সার একটি খামারে অভিযান চালিয়ে এই সাতজনকে আটক করে। আটককৃত দুই বাংলাদেশীর নাম আনোয়ার হোসেন মিজান ও কাকন দাস। আর ইতালিয়ান পাঁচজনের নাম জেন্নারো, ফ্রাঞ্চেস্কো, রক্কো, সার্ভেরিও ও রবের্তো। এদের বিরুদ্ধে শ্রমিক ঠকানোর অভিযোগ রয়েছে।

এবিষয়ে দেশটির পাওলো এলাকার প্রসিকিউটর পিয়েরপাওলো ব্রুনি ও ম্যাজিস্ট্রেট মারিয়া গ্রাতসিয়া এলিয়া বলেন, দীর্ঘদিন যাবত পাঁচ ইতালিয়ান মালিক ও দুই বাংলাদেশী দালাল এসব অভিবাসীদের দিয়ে কৃষি কাজ করিয়ে আসছিলেন কিন্তু তাদের পারিশ্রমিক হিসেবে ঘণ্টায় মাত্র এক ইউরো পঞ্চাশ পয়সা দেয়া হত। এছাড়াও এদের দিয়ে বিরতিহীন টানা দুই থেকে তিনদিন কাজ করানো হত যা ইতালির শ্রম আইনবিরোধী। এছাড়াও মাঝেমধ্যে এসব শ্রমিকদের সাথে বাজে ব্যবহার করা হত এবং সঠিক সময়ে ও পর্যাপ্ত পরিমাণে খাবার দেয়া হত না।

দেশটির প্রথমশ্রেণীর সব গণমাধ্যমে বিষয়টি ফলাও করে প্রচার হবার পর বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে নিন্দার ঝড় বইতে শুরু করে। এছাড়াও এবিষয়ে দেশটির কৃষিমন্ত্রী তেরেসা বেল্লানোভা দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যে কৃষিখাতে উন্নয়নের জন্য বিপুলসংখ্যক জনবল এইখাতে নিয়োগ দিয়েছি। এছাড়াও এইখাতে কর্মরত সকল শ্রমিকদের জন্য নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা বাড়াচ্ছি। বর্তমানে কেউ যদি কোন শ্রমিকের সাথে একটু আইনবিরোধী কাজ করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে খুবই কঠোর হবে ইতালির সরকার।