September 23, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

জগন্নাথপুরের হাওরে ধান কাটছেন সাড়ে পাঁচ হাজার স্বেচ্ছাসেবী

সংবাদদাতা :

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন হাওরে পারিশ্রমিক শ্রমিকসহ স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কাটছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, আনসার সদস্যসহ স্বেচ্ছাসেবী প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার যুবক ও তরুণ।

জগন্নাথপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুমদার জানান, জগন্নাথপুর উপজেলার ছোটবড় ১৫ টি হাওরে এবার ২৫ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ করা হয়েছে। হাওর জুড়ে পাকাধান থাকার পরও এবার করোনাভাইরাস সংক্রমনে অন্য জেলা থেকে তুলনামূলক কম শ্রমিক আসায় অকাল বন্যার আশঙ্কায় কৃষি বিভাগের আহ্বানে ধান কাটতে স্বেচ্ছাসেবীরা মাঠে নেমেছেন।
উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর জানায়, দেশের অন্য জেলা থেকে আগত ও স্থানীয় কৃষি শ্রমিক পারিশ্রমিক নিয়ে ধান কাটছেন সাড়ে  ৩  হাজার লোক। এছাড়াও শিক্ষক-শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের ২ হাজার স্বেচ্ছাসেবীরাও ধান কাটছেন।

জগন্নাথপুর উপজেলার মীরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক শেরিন জানান, ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে একযোগে শনিবার সকাল সাতটা থেকে চারশ তরুণ স্বেচ্ছাসেবক ইউনিয়নের বিভিন্ন হাওরে অসহায় শ্রমিক সংকটেপড়া কৃষকদের ধান কেটে দিয়েছেন। আমি স্বেচ্ছাসেবীদের উদ্বুদ্ধ করে ধান কাটার কার্যক্রম তদারকি করছি।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম বলেন, ইউএনও জগন্নাথপুর এর ফেসবুক পেজে ধান কাটার আহ্বান জানিয়ে একটি পোস্ট দেওয়ার পর থেকে এ উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নানা বয়সী মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সাড়া দিয়ে ধান কাটতে নেমেছেন। তরুণরা উৎসাহ উদ্দীপনায় কৃষকদের পাকা ধান কেটে দিয়ে মহতি কাজ করছেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমি তাদের কে ধন্যবাদ জানাই।