September 23, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

জামালপুরে নতুন ৫ করোনা রোগী শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ২১

অনলাইন ডেস্ক :

সারা জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় আজ শুক্রবার ৫ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। নতুন আক্রান্ত ৫ জনের মধ্যে জামালপুর সদরে ২ জন, মাদারগঞ্জে ২ জন ও মেলান্দহ উপজেলায় ১ জন। এই ৫ জন নিয়ে জামালপুরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২১ জনে। এদের মধ্যে ২ নারী করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাবার পর নমুনা পরীক্ষায় তাদের কোভিক-১৯ পজেটিভ ফলাফল এসেছিল।

শুক্রবার নতুন আক্রান্ত ৫ জন নিয়ে এ পর্যন্ত জামালপুরে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২১ জন। ২১ জনের মধ্যে জামালপুর সদরে ৩, বকশীগঞ্জে ২, দেওয়ানগঞ্জে ৩, মেলান্দহে ৩, মাদারগঞ্জে ৫, সরিষাবাড়িতে ১ ও ইসলামপুরে ৪ জনের মধ্যে ২ জন মৃত বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

জামালপুর সদরে আক্রান্ত ২ জন হলেন জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের স্টাফ। একজন অফিস সহায়ক (৪০) ও অন্যজন ওয়ার্ড বয় (৩৮)। তারা কিভাবে আক্রান্ত হয়েছেন এ বিষয়ে অনুসন্ধান করবে স্বাস্থ্য বিভাগ। সদরে নতুন ২ জন আক্রান্ত নিয়ে মোট আক্রান্ত ৩ জনে দাঁড়ালো।

মাদারগঞ্জে আক্রান্ত দুজন মা ও ছেলে। এর আগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যে আয়া করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তারা ওই আয়ার ৩৫ বছর বয়স্ক স্বামী ও ৫৫ বছর বয়স্কা শাশুড়ি। তাদের বাড়ি চরপাকেরদহ ইউনিয়নের ফাজিলপুর। তারা ওই আয়ার সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন মাদারগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ। নতুন ২ জন আক্রান্ত নিয়ে এ উপজেলায় মোট আক্রান্ত ৪ জনে দাঁড়ালো।

মেলান্দহে আক্রান্ত ব্যক্তিটি নারায়ণগঞ্জফেরত। ২৫ বছরের আক্রান্ত যুবকটি ১৫ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে তার পিতামাতাকে মাহমুদপুর ইউনিয়নের আদবাড়িয়া নিজ গ্রামে নিয়ে আসেন বলে জানিয়েছেন মেলান্দহ স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফজলুল হক। নতুন আক্রান্ত ১ জন নিয়ে এ উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ জনে দাঁড়ালো।

সিভিল সার্জন ডা. আবু সাঈদ মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পিবিএ’কে জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জামালপুরের ৭টি উপজেলা থেকে ৪৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে ৫ জনের কোভিক-১৯ পজেটিভ ফলাফল এসেছে। নতুন আক্রান্তদের দ্রুত সময়ের মধ্যে জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে সেবা দেওয়া হবে। তবে আইসোলেশনে রাখা প্রথমদিকের ৫ করোনা রোগীকে সেবা দেবার পর তাদের প্রথম নমুনা পরীক্ষায় ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। পরবর্তী পরীক্ষায় যদি তাদের ফলাফল নেগেটিভ আসে তবে তাদের ছাড়পত্র দেওয়া হবে। সূত্র- পিবিএ।