September 23, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

ছিনতাইকারীদের আক্রমণে সিসিকের কর্মচারী আব্দুস সালাম গুরুতর আহত, ৬২ হাজার টাকা লুট

সিলেট শহরতলীতে ছিনতাইকারীদের আক্রমণে সিসিকের এক সরকারি চাকুরীজীবি গুরুতর আহত হয়েছেন। আহত আব্দুস সালাম এর কাছ থেকে ছিনতাইকারীরা ৬২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। এ সময় তাকে চুরি দিয়ে ঘাই মেরে গুরুতর আহত করে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সদর উপজেলার এয়ারপোর্ট থানাধিন ক্যাডেট কলেজ ক্যাম্পাস উচ্চ বিদ্যালয় গেইটের সামনে মেইন রোডের পাশে। আহত আব্দুস সালাম এয়ারপোর্ট থানার মংলিরপাড় গ্রামের মৃত আব্দুল মুতলিব এর ছেলে। সে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের একজন সরকারি চাকুরিজীবী।

এ ব্যাপারে আহতের বড় ভাই মোঃ হেলাল আহমদ বাদী হয়ে এয়ারপোর্ট থানার বড়শলা আবাদানী গ্রামের আইয়ুব আলী ছেলে শফাত এর নামে উল্লেখ করে এবং ২ জনকে অজ্ঞাতনামা করে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সোমবার এয়ারপোর্ট থানায় একটি অভিযোগ দায়ে করেছেন।

জিডি সূত্রে জানা যায়, আহত আব্দুস সালাম গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে ঘর সংস্কারের জন্য এঙ্গেল ক্রয়ে উদ্দেশ্যে শহরের যাওয়ার জন্য ক্যাডেট কলেজ ক্যাম্পাস উচ্চ বিদ্যালয় গেইটের সামনে মেইন রোডের পাশে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এমন সময় বিবাদী শফাত সহ অজ্ঞাতনামা বিবাদীগণ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র চাকু, চাপাতি, লোহার পাইপ নিয়ে আব্দুস সালাম এর উপর হামলা চালিয়ে তার সাথে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। সে টাকা না দিলে ছিনতাইকারী শফাত সহ বিবাদীগণ মারপিট করলে আব্দুস সালামের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমপ্রাপ্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। ঠিক সে সময় শফত তার হাতে থাকা চাকু দিয়ে তাকে প্রাণে মারার উদ্দেশ্যে পিঠের বাম পাশে কাঁদের নিচের অংশে এবং ডান পায়ের উরুতে একাধিকবার ঘাই মেরে রক্তাক্ত গুরুতর জখম করে। তৎসময় অজ্ঞাতনামা বিবাদীদ্বয় তার প্যান্টের পকেটে থাকা এঙ্গেল কেনার ৫০ হাজার টাকা ও ১২ টাকার মূল্যে একটি স্যামসাং মোবাইল ফোন লুট করে নেয়। আব্দুস সালামের শোর চিৎকার শোনে আশপাশের লোকজন সহ পথিকগণ এগিয়ে আসলে বিবাদীগণ টাকা ও মোবাইল নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। আশপাশের পরিচিত লোকজন আব্দুস সালামকে রক্তাক্ত গুরুতর আহত অবস্থা দ্রুত সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন।

বর্তমানে আব্দুস সালাম আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩য় তলা ১১নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উপরোক্ত বিষয়টি তদন্তপূর্বক বিবাদীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন আহতের বড়ভাই বাদী মোঃ হেলাল আহমদ।