September 19, 2021

Sylhet Amar Sylhet

www.sylhetamarsylhet.com

বঙ্গবীর ওসমানীর মৃত্যুবার্ষিকীতে সেলাই মেশিন ও স্কুল ড্রেস বিতরণ

বাঙালি জাতির অহংকার, প্রখ্যাত সমরবিদ, মহান মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, সংসদীয় গণতন্ত্রের মানষপুত্র, সাবেক মন্ত্রী, জাতীয় নেতা বঙ্গবীর জেনারেল এম.এ.জি ওসমানীর ৩৬তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ১৫ ফেব্রুয়ারি শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় নাইরপুলস্থ ওসমানী যাদুঘরে শিক্ষিত বেকার মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও সুবিধা বঞ্চিত মহিলাদের মধ্যে সেলাই মেশিন এবং গরীব মেধাবি (৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণি) শিক্ষার্থীদের মধ্যে পোষাক ও শিক্ষা উপকরণাদি বিতরণ এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি সংসদ সিলেটের সভাপতি সৈয়ীদ আহমদ বহলুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন ওসমানী যাদুঘরের সহকারী কীপার মোঃ জিয়ারত হোসেন খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী গোলাম মর্তুজা, আব্দুল হাই, আমিরুল হোসেন চৌধুরী আমনু, চৌধুরী মোহাম্মদ জিলন, মোঃ শফিকুর রহমান শফিক, বদরুল ইসলাম শাকির প্রমুখ। সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন হাফিজ নুরুল ইসলাম। শেষে দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা শামসুল ইসলাম।

সিলেটের শাহজালাল রহ: উচ্চ বিদ্যালয়, শাহপরান রহ: উচ্চ বিদ্যালয়, সৈয়দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ওসমানীনগরের মঙ্গলচন্ডি নিশিকান্ত মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, নূর মিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আল আমীন জামেয়া এতিমখানা, আমীর উদ্দিন হাফিজিয়া এতিমখানার ১৭জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে পোষাক ও শিক্ষা উপকরণাদি এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হবিগঞ্জের কাজী সালমা আক্তার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হারুনুর রশীদ, সিলেট নগরীর উপশহর নিবাসী জিনাত রেহানা ঝুমি ও বিশ্বনাথ চরচন্ডি নিবাসী গৃহিনী রাফিয়া বেগম এর মধ্যে ৪টি সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়।

সভাপতির বক্তব্যে সৈয়ীদ আহমদ বহলুল বলেন, বঙ্গবীর ওসমানীর জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী রাষ্ট্রীয় ভাবে যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে পালনের দাবী জানান। তিনি স্কুল-কলেজের পাঠ্য বইয়ে ওসমানী জীবনী লিপিবদ্ধ করে নতুন প্রজন্মকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করার আহবান জানান। সভাপতি কর্মসূচি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করার এডভোকেট নওসাদ আহমদ চৌধুরী, ডাঃ সৈয়দ তৌফিক এলাহি, অরুণোদয় পাল ঝলক, মোহাম্মদ আনোয়ার আলী, মিসবাহ সিদ্দিকী, সৈয়দ জাকির হোসেন, শাহেদ আহমদ, গোলাম কিবরিয়া, আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলু, ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, জাবেদ আহমদ চৌধুরী, ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, টিটু ওসমানী ও জিয়ারত হোসেন প্রমুখদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

১৬ ফেব্রুয়ারী রবিবার সকাল সাড়ে ৯টায় মরহুমের মাজার জিয়ারত ও শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, সাড়ে ১১টায় পুণ্যভূমি সিলেট শহরের প্রবেশদ্বারে বঙ্গবীর ওসমানী স্মরণীতে তাঁর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত হযরত শাহজালাল রহ: মাজার প্রাঙ্গণে খতমে কোরআন এবং বাদ জোহর হযরত শাহজালাল (রঃ) মাজার মসজিদে মিলাদ শেষে মরহুমের মাজার জিয়ারত। ওই দিন পরিবারের পক্ষ থেকে দয়ামীরস্থ নিজ বাড়ীতে খতমে কুরআন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।
বঙ্গবীর জেনারের ওসমানীর মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচিতে ওসমানী অনুরাগী সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য সবিনয় অনুরোধ জানাছেন সভাপতি সৈয়ীদ আহমদ বহলুল ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুয়েল এডভোকেট।