বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা প্রমাণ করে দেশ আইয়ামে জাহেলিয়াতের দিকে যাচ্ছে— এডভোকেট আব্দুর রকিব

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষ নেতা, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট এর আইনজীবী মাওলানা আব্দুর রকিব এডভোকেট ছাত্র নামধারী বিধর্মীয় মাস্তান কর্তৃক দেশের শীর্ষস্থানীয় বিদ্যাপিঠ, মেধাবী ছাত্রদের বিচরণ কেন্দ্র, বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বিকে হত্যা তীব্র নিন্দা জানিয়ে এক বিবৃতিতে বলেন, দেশে ইসলামী রাজনৈতিক দলসমূহকে কোনঠাসা করে রাখার ফলে দেশে ক্যাসিনো, জুয়া, মদ, ইসলাম বিরোধী সর্বপ্রকার কর্মকান্ড, দুর্নীতি রাষ্ট্রের পরিচালনায় নিয়োজিত প্রশাসনসহ সর্বমহল আইয়ামে জাহেলিয়াতের দিকে ধাবিত হওয়ায় বিধর্মীয় মাস্তানরা একজন মেধাবী ছাত্রকে নিমর্মভাবে হত্যা করার সাহস পেয়েছে। বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন। কিন্তু দেশের মৌলিক ভিত্তি গণতান্ত্রিক পরিবেশ ধ্বংস করে দেশের গণতন্ত্র, স্বাধীনতার অতন্ত্র প্রহরী দেশনেত্রী বিএনপির চেয়ারপার্সন, ২০ দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে কারাবদ্ধ রেখে এবং দেশের গণতন্ত্রকামী সকল ইসলামী দলসমূহকে কোনঠাসা করে, প্রতিবেশী দেশের সাথে নতজানু পররাষ্ট্র নীতি পরিচালনা করায় বার্মা কর্তৃক ১২ লক্ষ মুসলমানদেরকে তাদের জন্মভূমি হতে বিতাড়িত করে বাংলাদেশে ঠেলে দিয়ে ক্ষন্ত হয়নি। বাংলাদেশের বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি করার জন্য প্রতিবেশী দেশসমূহ যখন কুটকৌশলে ব্যস্ত, তখন দেশের জাতীয় ঐক্য বিনষ্ট করে গণতন্ত্র ধ্বংস ও দেশের যুবসমাজের চরিত্র বিনষ্ট সহ দেশের অর্থনীতি পুঙ্গ করে আইনের শাসন এবং সত্য সমাজ গঠনের পরিবর্তে সরকারের অগণতান্ত্রিক আচরণ ও রীতিনীতির কারণে দেশ আজ অন্ধকারের দিকে যাচ্ছে। এর একটি দৃষ্টান্ত হলো বিধর্মী মাস্তানরা বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে নির্মম ভাবে হত্যা করার সাহস পেয়েছে।

বিবৃতিতে তিনি দেশের সকল গণতান্ত্রিক ও ইসলামী শক্তিসমূহকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে বর্তমান পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য আহবান জানান।