রেবতী রমন সরকারি দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয়ে মিড-ডে মিল এর উদ্বোধনী

দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি :

সিলেট জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার অনিল কৃষ্ণ মজুমদার বলেছেন, বর্তমান সরকার শিক্ষাক্ষেত্রে যুগপোযোগী পদক্ষেপ নিয়েছে যার ফলে প্রতিটি শিক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন ও মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে ক্লাস নেয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তি পাচ্ছেন। সৃজনশীল শিক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মেধার বিকাশ ঘটছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিটি স্কুলে মিড-ডে মিল চালু করার নির্দেশ দিয়েছেন। ফলে শিক্ষার্থীরা পুষ্টি সম্পন্ন খাদ্য খাবার সুযোগ পাচ্ছে। এ উদ্যোগ অব্যাহত থাকলে শিক্ষর্থীদের লেখাপড়া মনোনিবেশ হওয়ার পাশাপাশি সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হবে।

তিনি ৯ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুরে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার মোগলাবাজার রেবতী রমন সরকারি দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয়ে মিড-ডে মিল এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিন্টু চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সহকারী প্রধান শিক্ষক মুক্তিসেন সামন্তের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সত্য ব্রত রায়, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি আলহাজ¦ চুনু মিয়া, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক আলহাজ কাপ্তান হোসেন, জেলা শিক্ষা অফিসের গবেষণা কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন, সাবেক শিক্ষক তপন কুমার ভট্টাচার্য্য, দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাব সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মুসিক।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরুন কান্তি দাশ তালুকদারের স্বাগত বক্তব্যের মধ্যে সুচিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমাজকর্মী ময়নুল ইসলাম মঞ্জু, স্নানফ্লাওয়ার কিন্ডারগার্টের প্রধান শিক্ষক শিহাব উদ্দিন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সাবেক সদস্য নন্দন পাল, নুরুল আমীন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক এ.কে.এম সারুজ্জামান, শেলী সাহা, রিপন কুমার পাল, বিশ^নাথ তালুকদার, তপন কুমার বড়াল, মোঃ ফয়সল আহমদ, বায়েজিদ শাহ, রুকশানা আক্তার, মাবিয়া খানম রুবা, মাজেদা বেগম, নমিতা রাণী পাল, সহিদুল ইসলাম, জিল্লুর রহমান, দোলন চৌধুরী, রানা আহমদ, আলী আহমদ প্রমুখ।