অসুস্থ শারীরিক প্রতিবন্ধী শিশু ফুয়াদ সকলের সাহায্যে বাঁচতে চায়

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার দিঘীরপার পূর্ব ইউনিয়নের পূর্ব কুওরের মাটি গ্রামের হাফিজ মামুনুর রশিদ এর ছেলে শারীরিক প্রতিবন্ধী আব্দুল মহিজ ফুয়াদ (৬) এর ডান পায়ের উরুর হাড্ডি ভেঙ্গে গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। ফুয়াদ সকলের সাহায্য-সহযোগিতায় চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাঁচতে চায়।
জানা যায়, জন্ম থেকে প্রতিবন্ধী ফুয়াদ এর দু’টি পা অচল। সে স্বাভাবিক হাটা-চলা করতে পারে না। গত ২৩ মে বাড়ির আঙ্গিনায় একা একা হাটার চেষ্টাকালে ফুয়াদ পড়ে গিয়ে তার ডান পায়ের উরুর হাড্ডি ভেঙ্গে যায়। এমতাবস্থায় তাকে প্রথমে জকিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সিলেটে চিকিৎসা গ্রহণের পরামর্শ দেন কর্তব্যরত ডাক্তার। পরে তার পিতা হাফিজ মামুনুর রশিদ তাকে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে ফুয়াদ হাসপাতালের অর্থপেডিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডাঃ শংকর কুমার রায় এর তত্ত্বাবধানে ৩য় তলার ৯নং ওয়ার্ডে ৩৪নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
ফুয়াদের বাবা ওসমানীনগর উপজেলার কুরুয়া ইসলামিয়া আলিম মাদরাসারর হিফজ বিভাগের সাবেক প্রধান শিক্ষক ছিলেন। ডাক্তারগণ বলেছেন, চিকিৎসার মাধ্যমে ফুয়াদকে পুরোপুরি সুস্থ করতে প্রায় ২ লক্ষ টাকার প্রয়োজন। এত টাকা দরিদ্র হাফিজ মামুনুর রশিদ পক্ষে জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। অসুস্থ ছেলেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে দেশ-বিদেশ ও সমাজের বিত্তবানদের সাহায্য সহযোগীতা কামনা করেছেন হাফিজ মামুনুর রশিদ। দরিদ্র মামুনুর রশিদের ২ মেয়ে ২ ছেলে। ফুয়াদ ৩য়। তার ভিটে বাড়ী ছাড়া আর কোন সহায় সম্পত্তি নেই।
দরিদ্র হাফিজ মামুনুর রশিদ তার ছেলের চিকিৎসার জন্য সকল হৃদয়বান ও দানশীল ব্যক্তিদের আন্তরিক সাহায্য সহযোগিতার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্য পাঠাতে পারবেন – বিকাশ ঃ ০১৭১৫ ৪০৯৮৬০, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড, সড়কেরবাজার শাখা, কানাইঘাট, হিসাব নং- ০২০০০০৯০৩৭৩৪০।