Main Menu

অনলাইনে প্রেমের ফাঁদ, বাঁচার ৫ উপায়

প্রতারণা বাড়ছে অনলাইন প্রেমে। টিন্ডার, টানটানসহ ডেটিং অ্যাপের যুগে নিজেদের আপডেট করে নিয়েছে প্রতারকরাও। আন্তর্জাতিক সংস্থা অ্যাকশন ফ্রডের হিসাবে ২০১৮ আলে অনলাইনের মাধ্যমে প্রেম করতে গিয়ে ‘ধরা’ খাওয়া মানুষের সংখ্যা আগের বছরের তুলনায় ২৭ ভাগ বেড়েছে। মোট প্রতারিত ডিজিটাল রোমিও-জুলিয়েটদের ৬৩ শতাংশই নারী।

অনলাইনে সঙ্গী খুঁজতে গিয়ে মানসিক ও আর্থিক ক্ষতির শিকার হচ্ছেন অনেকে। ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র আগে তাই সবার জন্য সতর্ক থাকার টিপস দিয়েছে বিবিসি।

অনলাইন প্রেমের প্রতারণা থেকে বাঁচার ৫ উপায়

১. জালে আটকানোর জন্য টার্গেট ব্যক্তির পছন্দ-অপছন্দ, ব্যক্তিত্ব, জীবন-যাপন ইত্যাদি তথ্যগুলো কাজে লাগায় প্রতারকরা। এসব তথ্য বিশ্লেষণ করে ব্যক্তির মনোজগৎ সম্পর্কে ম্যাপিং করা হয়। এভাবে কাছে গিয়ে করে সর্বনাশ। তাই নিজের সম্পর্কে খুব বেশি তথ্য বিশ্বস্ত মানুষ ছাড়া অন্য কারো সঙ্গে শেয়ার করবেন না।

২. ধরুন কোথাও ঘুরতে গিয়েছেন। আপনি ভাবলেন ফেসবুকে সেসব ছবি ‘পাবলিক’ দিলে কোন অসুবিধা নেই। কিন্তু এসব ‘পাবলিক’ ছবি দিয়েই আপনার পছন্দ-অপছন্দ, আগ্রহ সম্পর্কে জেনে যাচ্ছে প্রতারকরা।

৩. প্রতারকরা অনিবন্ধিত ইন্টারনেট প্রটোকল ও ফোন নাম্বার ব্যবহার করে থাকে। তাই পরে তাদেরকে ধরা সম্ভব হয় না অনেক ক্ষেত্রে।

৪. অনলাইনে পরিচয়, দ্রুত ঘনিষ্ঠতা। হঠাৎ ‘জরুরি প্রয়োজনে’ টাকার দরকার হয়ে পড়লো সঙ্গীর। — এমনটা আসলে প্রতারণার ফাঁদ। কখনও এমন ক্ষেত্রে টাকা দেবেন না। আবার দেখা হয়নি কিন্তু অনলাইনে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হয়েছে এমন মানুষ টাকা চাইলেও পাঠাবেন না।

৫. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের প্রোফাইল এখনই সংশোধন করুন। গুরুত্বপূর্ন তথ্যগুলো ‘অনলি মি’ বা ‘ফ্রেন্ডস অনলি’ করে রাখুন। দু’একটার বেশি তথ্য পাবলিক করবেন না।






Comments are Closed