কোষ্ঠকাঠিন্য এড়িয়ে চলুন

কোষ্ঠকাঠিন্য যেকোনো বয়সী মানুষের জন্য অস্বস্তিকর সমস্যা। প্রতীকী ছবি

কোষ্ঠকাঠিন্য যেকোনো বয়সী মানুষের জন্য অস্বস্তিকর সমস্যা। আমাদের দৈনন্দিন জীবনের খাদ্যাভ্যাস কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যার সৃষ্টি করে। কমবেশি সবাই জীবনের কোনো-না-কোনো সময়ে এই সমস্যায় পড়েন। তাই সঠিক খাদ্যাভ্যাসই দিতে পারে এই সমস্যা থেকে মুক্তি। তাই দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় কিছু খাবার পরিহার ও কিছু খাবার গ্রহণের মাধ্যমে সহজেই কোষ্ঠকাঠিন্য এড়িয়ে চলা যায়।

তেলে ভাজা খাবার: তেলে ভাজা খাবারে সাধারণত চর্বির পরিমাণ বেশি থাকে। এ ছাড়া ফাইবার বা আঁশ থাকে না বললেই চলে। তাই তেলে ভাজা খাবারগুলো হজমপ্রক্রিয়া ব্যাহত করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য সৃষ্টি করে।

দুগ্ধজাত খাবার: কোষ্ঠকাঠিন্য এড়িয়ে চলতে দুধ ও দুগ্ধজাত খাবার পরিহার করাই উত্তম। সে ক্ষেত্রে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি মেটাতে দুধ চিনি ছাড়া পাতলা করে গ্রহণ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন পুষ্টিবিদরা।

সবজি: প্রতিদিন কিছু শাক-সবজি খাদ্যতালিকায় রাখা অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু কিছু সবজি যেমন- কাঁচাকলা সহজে হজম না হওয়ায় একদম পরিহার করাই শ্রেয়। অপরদিকে পাকাকলা উচ্চ আঁশ সমৃদ্ধ হওয়ায় কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময়ে সাহায্য করে। সাদা ভাতের পরিবর্তে লাল চালের ভাত কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময়ে খাওয়া যেতে পারে। আঁশসমৃদ্ধ লাল চালের ভাত দ্রুত হজম হয় এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করতে সাহায্য করে।

লেখক: চর্ম ও যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ